এপ্রিল মাসকে ‘যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে সচেতনতার’ মাস ঘোষণা দিলেন ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এপ্রিল মাসকে যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে জাতীয় সচেতনতার মাস হিসেবে ঘোষণা করেছেন। সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়, গতকাল শুক্রবার এক সরকারি প্রজ্ঞাপনে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।

সম্প্রতি বেশ কয়েকজন নারী মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে নানা ধরনের নিগ্রহের অভিযোগ করেছেন। পর্ন চলচ্চিত্রের নায়িকা, প্লেবয় ম্যাগাজিনের মডেলসহ একাধিক নারী ট্রাম্পের সঙ্গে যৌন সম্পর্কের কথা তুলে ধরে টেলিভিশনে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল সেক্সুয়াল ভায়োলেন্স রিসোর্স সেন্টারের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ২০০১ সাল থেকে এপ্রিল যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে সচেতনতার মাস হিসেবে পালন করা হচ্ছে। এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি শুরু হয় প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সময় ২০১০ সাল থেকে। সেই প্রথা এখনো চালু আছে।

গতকাল প্রেসিডেন্টের প্রজ্ঞাপন তুলে ধরে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘আমাদের সমাজে যৌন নিগ্রহ দুর্ভাগ্যজনকভাবে নিয়মিত ঘটছে। এখানে নিপীড়নকারীরা প্রায়ই শাস্তি পায় না। এ ধরনের জঘন্য অপরাধ ঘটে যত্রতত্র। গভীর সম্পর্কে, জনসমক্ষে এবং কর্মক্ষেত্রেও।’

গত বছর থেকে কর্মক্ষেত্রে যৌন হয়রানির প্রতিবাদে ‘মি টু’ আন্দোলন ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। বিভিন্ন শিল্পপ্রতিষ্ঠানের কর্তাব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সম্প্রতি যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। খোদ মার্কিন প্রেসিডেন্টর বিরুদ্ধেও উঠেছে নিপীড়নের অভিযোগ। গত ডিসেম্বরে একদল নারী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে তাঁদের যৌন সম্পর্কের ঘটনা তুলে ধরেন। এযাবৎ অন্তত ১৫ জন নারী ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নিপীড়নের অভিযোগ এনেছেন। এর মধ্যে ১৩ জন নারী ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সরাসরি যৌন নিপীড়নের অভিযোগ তোলেন। এসব ঘটনা ঘটেছে ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হওয়ার আগে।

তবে প্রতিটি ঘটনাই প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে।

Related Articles