ছাত্রলীগ নেতা হত্যাচেষ্টা মামলায় এমপি রানার জামিন মঞ্জুর

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঘাটাইল জিবিজি কলেজ ছাত্র সংসদের সহসভাপতি (ভিপি) ছাত্রলীগ নেতা আবু সাঈদ রুবেলকে হত্যাচেষ্টা মামলায় টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনের সংসদ সদস্য আমানুর রহমান রানার জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘাটাইল আমলী আদালতের বিচারক জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম গোলাম কিবরিয়া তার জামিন মঞ্জুর করেন।

টাঙ্গাইল গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশোক কুমার সিংহ জানান, সকাল সাড়ে ১১টায় এমপি আমানুর রহমান খান রানাকে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে টাঙ্গাইল আদালতে আনা হয়। এর পর ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) শামছুল ইসলামের গত ৩ মে এই মামলায় রানাকে গ্রেফতার দেখানোর আবেদনের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার আদালত এমপি রানাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দেন। এরপর এমপি রানা আইনজীবির মাধ্যমে জামিন আবেদন করলে বিচারক তার জামিন মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৯ নভেম্বর রাতে একদল সন্ত্রাসী আবু সাঈদকে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে। এ হামলায় আবু সাঈদ পঙ্গু হয়ে যান। এ মামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া আসামী আব্দুল জব্বার বাবু ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ২০১৬ সালের ২০ ডিসেম্বর আদালতে জবানবন্দি দেন। জবানবন্দিতে আব্দুল জব্বার জানান, এমপি রানা কারাগারে থেকে আবু সাঈদকে কিছু করার নির্দেশ দেন। তার নির্দেশ মতোই সাঈদকে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমন করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের আগস্টে গোয়েন্দা পুলিশের তদন্তে আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হত্যা মামলায় এমপি আমানুর রহমানর খান রানা ও তার ভাইদের নাম বের হয়ে আসে। ২০১৬ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি তদন্ত শেষে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় গোয়েন্দা পুলিশ। ফারুক হত্যা মামলায় রানার অপর তিন ভাই টাঙ্গাইল পৌরসভার সাবেক মেয়র সহিদুর রহমান খান মুক্তি, ব্যবসায়ী নেতা জাহিদুর রহমান খান কাকন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সানিয়াত খান বাপ্পাসহ ১৪জন আসামী রয়েছে। এই মামলার সাক্ষ্যগ্রহন চলছে টাঙ্গাইল প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে।

Related Articles