টাঙ্গাইলে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক বিক্রেতা নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার দেউলাবাড়ি এলাকায় র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে আবুল কালাম আজাদ খান (৪২) নামে এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় দুই র‌্যাব সদস্য আহত হয়েছেন। নিহত মাদক বিক্রেতা আবুল কালাম আজাদ খান ঘাটাইল উপজেলার পূর্ব পাকুটিয়া গ্রামের মৃত আব্দুর রহমান খানের ছেলে। তার নামে জেলার বিভিন্ন থানার ছয়টি মাদক মামলা বিচারাধীন রয়েছে। এসময় একটি বিদেশি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি, ১০০ পিস ফেনসিডিল ও দেড় হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে টাঙ্গাইল র‌্যাব-১২।

টাঙ্গাইল র‌্যাব-১২’র সিপিসি-৩ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর মোহাম্মদ রবিউল ইসলাম জানান, রোববার দিনগত রাত ১১টার দিকে গোপণ সূত্রে র‌্যাবের কাছে খবর আসে ঘাটাইল উপজেলার দেউলাবাড়ি এলাকার একটি ইটভাটায় ৫-৬জন অস্ত্রধারী মাদক বিক্রেতা মাদকদ্রব্য বিক্রির জন্য অপেক্ষা করছে। রাত পৌনে ১২টার দিকে ওই এলাকায় পৌঁছে র‌্যাবের একটি দল ঘটনাস্থলে যাওয়া মাত্রই মাদক বিক্রেতারা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি বর্ষণ করে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছুঁড়ে। প্রায় ১৪-১৫ মিনিট পাল্টাপাল্টি গুলিবিনিময়ের এক পর্যায়ে অস্ত্রধারী মাদক বিক্রেতারা পিছু হটে।

এ সময় এক মাদক বিক্রেতাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে র‌্যাব তাকে উদ্ধার করে রাত সাড়ে ১২টার দিকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহত ব্যক্তি স্থানীয় মাদক সম্রাট আবুল কালাম আজাদ খান বলে এলাকাবাসী সনাক্ত করে। এ ঘটনায় র‌্যাবের এএসআই (এবি) মো. ছামিদুল ইসলাম ও ল্যান্স নায়েক মো. আনিছুর রহমান আহত হন। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। ঘটনাস্থল থেকে র‌্যাব একটি বিদেশি পিস্তল, তিন রাউন্ড তাজা গুলি, একটি ম্যাগজিন, ১০০ বোতল ফেনসিডিল, দেড় হাজার(১,৫০০) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও মাদক সেবনের বিভিন্ন সরঞ্জামাদি উদ্ধার করে।

র‌্যাব কমান্ডার আরো জানান, আবুল কালাম আজাদ খানের বিরুদ্ধে জেলার বিভিন্ন থানায় দায়েরকৃত মাদক সংক্রান্ত ছয়টি মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

Related Articles