সখীপুরে হারিয়ে যাওয়া পুত্রের অপেক্ষায় ৭ বছর

সখীপুর প্রতিনিধি :  টাঙ্গাইলের সখীপুরে প্রায় ৭ বছর ধরে হারিয়ে যাওয়া পুত্রের অপেক্ষায় পথ চেয়ে রয়েছে পরিবার। ২০১১ সালের ৩০ অক্টোবর পুত্র সত্য চন্দ্র শীল (২৩) বাবার সঙ্গে অভিমান করে বাড়ি ছেড়ে চলে গেলে আর বাড়ি ফিরেনি। প্রায় সাত বছর ধরে একমাত্র পুত্র সন্তানকে হারিয়ে বাবা কানাই লাল চন্দ্র শীলসহ বাড়ির লোকজন প্রায় নির্বাক।

বাবা কানাই লাল চন্দ্র শীল জানান, ২০১১ সালের ৩০ অক্টোবর আমার স্ত্রী তাঁর (নিজের) মা ননী বালা মারা যান।

জানা যায়, মাকে দাহন শেষে রাতে পরিবারের লোকজন নিয়ে গোসল করতে গিয়ে আমার ভাগিনা বিশ্বজিতের ছেলের সঙ্গে ঝগড়া বাঁধে। দু’জনকেই ধমক দিয়ে বাড়িতে নিয়ে আসলে সে আমার ভাগিনার বিচার চায়। অন্যথায় ত্যাজ্য করে দেন বলে কান্না-কাটি শুরু করে। পরের দিন বিচারের আশ্বাস দিলেও রাতেই সেই যে অভিমান করে চলে যায়। সেই থেকে আর বাড়ি ফিরে আসেনি।

সকল জায়গায় খোঁজেও আজও তার কোন সন্ধান পাইনি। সে সরকারি মুজিব কলেজের একাদশ বর্ষের ছাত্র ছিল। তিনি ব্যাপারে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও করেছিলেন বলে জানান। সখীপুর থানার সাধারণ ডায়েরি নম্বর-৪৬২, তারিখ ১২.১১.১১। সব কিছুর বিনিময়ে হলেও তিনি তার একমাত্র ছেলেকে ফেরত পেতে চান।

এ ব্যাপারে সখীপুর থানার অফিসার্স ইনচার্জ এসএম তুহীন আলী বলেন, হারিয়ে যাওয়া সত্য চন্দ্র শীলের খোঁজ-খবর নেওয়া অব্যাহত রয়েছে।

Related Articles