কালিহাতীতে ১ দিনে ৭টি বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন ইউএনও

কালিহাতী প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে একদিনে ৭ বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মুছাম্মৎ শাহীনা আক্তার।

সোমবার (২৭ আগস্ট) গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সকাল থেকে রাত্রি পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে গিয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সহযোগিতায় তিনি বাল্যবিবাহ গুলো বন্ধ করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মুছাম্মৎ শাহীনা আক্তার মজলুমের কণ্ঠকে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি উপজেলার পারখী ইউনিয়নের পূর্বাশুন্ডা পশ্চিমপাড়া গ্রামের আব্দুল লতিফের মেয়ে লতা (১৭), সরিষাআটা গ্রামের ওমর আলীর মেয়ে তাহমিনা আক্তার তমা (১৩), নারান্দিয়া ইউনিয়নের পালিমা দিগলাপাড়া গ্রামের লিটনের মেয়ে লিজা (১৪), কোকডহড়া ইউনিয়নের বড় হরিসভা গ্রামের আমিনুর ইসলামের মেয়ে আফিয়া আক্তার (১৫) বাল্যবিবাহ হচ্ছে। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে স্ব স্ব স্থানে সরেজমিনে গিয়ে বন্ধ করি।

অপরদিকে ঘাটাইল উপজেলার মেয়ে সেতু (১৩) কে কালিহাতী উপজেলার পাছজোয়াইর গ্রামের লাল সানের বাড়ীতে, একই উপজেলার মেয়ে রিতা (১৪) কে কালিহাতী উপজেলার বর্গা গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে সালামের সাথে, বর্গা বাজারের উত্তর পাশে শামসুলের বাড়ীতে তার ছেলে আসাদুলের সাথে সুলতানা (১৬) নামের মেয়েকে বাল্যবিবাহ দেওয়া হচ্ছে এমন খবর পেয়ে সেগুলোও বন্ধ করা হয়। পরে অভিভাবকরা বাল্যবিবাহ দিবে না মর্মে মুচলেকা দিলে তাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

ইউএনও মুছাম্মৎ শাহীনা আক্তার আরো জানান, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Related Articles