ভূঞাপুরে অর্থদন্ডের পরও চিকিৎসা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে ভুয়া চিকিৎসক

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে পাকিস্তানি ডাক্তার হিসেবে পরিচিত আব্দুল হাকিম নামের একজন ভুয়া চিকিৎসককে গত বুধবার বিকালে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরিফ আহম্মেদ ৩০ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেন। ওই ভুয়া চিকিৎসককে জরিমানা করার পরও ওই আব্দুল হাকিম তার চিকিৎসা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আব্দুল হাকিম পৌর এলাকার শহীদ জিয়া মহিলা ডিগ্রী কলেজ গেট সংলগ্ন জীবন মেডিকেল হল দোকানে বসে রোগীদের চিকিৎসাপত্র দেন।

জানা গেছে, উপজেলার গাবসারা ইউনিয়নের আব্দুল হাকিম কয়েক বছর পাকিস্তানে চাকরি করে বাংলাদেশে এসে জীবন মেডিকেল হল নামে একটা ফার্মেসী খুলে বসেন। এরপর নিজেকে ডাক্তার উপাধি দিয়ে চিকিৎসাপত্রের বই ছাপিয়ে সাধারন রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। তার ব্যবহৃত চিকিৎসাপত্রে, এমডিএএম (পাকিস্তান), ডিএইচএমএস (পাকিস্তান), এলএমএএফ (বাংলাদেশ) ও পেড্রিয়াট্রিক এসোসিয়েট লিখে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন। রোগীদের সাথে প্রতারনা করে টাকার বিনিময়ে ভুয়া চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। পরে গত বুধবার (৮ আগষ্ট) উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরিফ আহম্মেদ জীবন মেডিকেল হলে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ভুয়া চিকিৎসক আব্দুল হাকিমকে অর্থদন্ড প্রদান করেন।

উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরিফ আহম্মেদ মজলুমের কণ্ঠকে জানান, ডাক্তারী কোন বৈধ কাগজপত্র না থাকায় আব্দুল হাকিমকে ৩০হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

Related Articles

1 Comment

Avarage Rating:
  • 0 / 10
  • Minhaz Uddin , August 12, 2018 @ 10:08 pm

    আপডেটেড তথ্যসমৃদ্ধ খবর পরিবেশন করার জন্য ধন্যবাদ।

Comments are closed.