টাঙ্গাইলে প্রতিবন্ধী নারী যাত্রীকে ধর্ষনের ঘটনায় বাস সুপারভাইজার চার দিনের রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলে প্রতিবন্ধী এক নারী বাস যাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃত ওই বাসের সুপারভাইজার এরশাদকে চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

টাঙ্গাইলের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মোঃ আশিকুজ্জামান মঙ্গলবার রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে এই মঞ্জুর আদেশ দেন।

সোমবার ভোরে ওই বাসের সুপারভাইজার এরশাদকে (৪০) গ্রেপ্তার করে। বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব থানার পুলিশ। কালিহাতী উপজেলার বেনুকুর্শা গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত এরশাদকে পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে পুলিশ সোমবার দুপুরে টাঙ্গাইল বিচারিক হাকিম আদালতে হাজির করে। আদালত মঙ্গলবার শুনানির দিন ধার্য করেছিল।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব প্রান্তে টহলরত পুলিশ দল ওই এলাকার নৈশপ্রহরী মাধ্যমে জানতে পারে যে, বাস স্ট্যান্ডে একটি বাসের ভিতর নারীর কান্না শোনা যাচ্ছে। এ খবর পেয়ে ওই টহলদল বাসটিতে গিয়ে প্রতিবন্ধী এক নারীকে উদ্ধার করে। এসময় ওই নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে পুলিশকে জানায়। পরে পুলিশ ওই বাসের চালকের সহকারি নাজমুলকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পরদিন (শুক্রবার) উপপরিদর্শক নুরে আলম বাদি হয়ে বাসের চালক আলম খন্দকার ও আটককৃত নাজমুলকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় চালক আলম খন্দকারের বিরুদ্ধে ওই নারীকে ধর্ষণ এবং সহকারি নাজমুলের বিরুদ্ধে ধর্ষণে সহায়তা করার অভিযোগ আনা হয়।

শুক্রবার সন্ধ্যায় নাজমুলকে ওই মামলায় টাঙ্গাইল বিচারিক হাকিম আদালতে পাঠানো হয়। এসময় তিনি ঘটনার বর্ণনা দিয়ে আদালতে জবানবন্দি দেন। নাজমুলের জবানবন্দিতেই এই ঘটনায় সুপারভাইজার এরশাদেরও জড়িত থাকার বিষয়টি বের হয়ে আসে।

সোমবার ধর্ষনের শিকার ওই নারীকে তার ভাই নিজের হেফাজতে নেয়ার জন্য আদালতে আবেদন করেন। আদালত তার আবেদন মঞ্জুর করার পর তাকে (ওই নারী) তার ভাই নিয়ে যান।

Related Articles