টাঙ্গাইলের নগর জলফৈ বাইপাসে আবাসিক হোটেলে অনৈতিক কার্যকলাপ

টাঙ্গাইলের নগর জলফৈ বাইপাসে আবাসিক হোটেলে অনৈতিক কার্যকলাপ

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলের ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের নগর জলফৈ বাইপাস এলাকার বিজয় মার্কেটের দ্বিতীয় তলায় মিতা গেস্ট হাউজ নামের আবাসিক হোটেলেও অবাধে অসামাজিক কার্যকলাপ চলছে নির্বিঘ্নে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পেশাদার পতিতাদের এনে হোটেলে রেখে কর্তৃপক্ষ এই অসামাজিক কার্যকলাপ পরিচালনা করছে।মহাসড়কের পাশে অবস্থানের কারণে অতি সহজেই খদ্দেররা ওই হোটেলে গিয়ে তাদের জৈবিক চাহিদা মিটাচ্ছে বিনিময়ে কর্তৃপক্ষ হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। এ কারণে স্কুল কলেজগামী ছাত্ররাও আসক্ত হয়ে পড়ছে এসব কার্যকলাপে। দিনরাত প্রতিনিয়ত প্রশাসনের নাকের ডগায় এ অবৈধ অসামাজিক কার্যকলাপ চলে আসলেও কর্তৃপক্ষের সেদিকে কোন নজর নেই। সরেজমিন ওই আবাসিক হোটেলে গিয়ে তিন জন নারী ও ১৫/২০ জন খদ্দেরের দেখা মিলে। তাদের মধ্যে শ্রমিক ও স্কুল কলেজের ছাত্রের সংখ্যাই বেশি।

সম্প্রতি জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) খদ্দেরসহ এসব পেশাদার পতিতাদের ওই আবাসিক হোটেল থেকে গ্রেপ্তার করলেও রহস্যজনক কারণে তাদের আবার ছেড়ে দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে ওই আবাসিক হোটেলের মালিক ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও উপজেলার আশরাফ হোসেন জানান, প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই তারা এ ব্যবসা পরিচালনা করছেন।

এ বিষয়ে টাঙ্গাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সায়েদুর রহমান জানান, তিনি এ বিষয়ে কিছু অবগত নন। তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলেও জানান তিনি।

Related Articles

1 Comment

Avarage Rating:
  • 0 / 10
  • রিমন সাঁই , January 2, 2019 @ 8:42 pm

    ডাস্টবিন যদি ভেঙ্গে দেন, ময়লা তো এখানেসেখানে ফেলবেই। যখন ডাস্টবিন ছিল তখনো কিন্তু ময়লা এদিকসেদিক ফেলা হতো, তবে সেখানে পরিমান/সংখ্যাটা কম ছিল।

Comments are closed.