বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল বেড়িয়ার ভেঙে ফেন্সিডিল বোঝাই গাড়ি পাড় করলো পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: উত্তরবঙ্গ থেকে আসা ফেন্সিডিল বোঝাই একটি কভারভ্যান আটকের পর বঙ্গবন্ধু সেতূপূর্বে টোল না দিয়ে বেড়িয়ার ভেঙে গাড়ি পাড় করার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। এর আগে আটককৃত ওই গাড়ি সেতুর পশ্চিম পাড়ের টোল বেড়িয়ার ভেঙে চালক সেতু পাড় করে গাড়ি রেখে পালিয়ে যায়। আজ রবিবার (২৭ জানুয়ারি) সকাল ১০ টা ২৫মিনিটে এই ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিমপাড়ে ফেন্সিডিল বোঝাই একটি কভারভ্যান গাড়িকে (ঢাকা মেট্রো-ড ১৪-৭১৭৬) পুলিশ সিগন্যাল দিলে চালক তা অমান্য করে দ্রুতগতিতে সেতুর পশ্চিমের টোলপ্লাজার ১০নং লেনের বেড়িয়ার ভেঙে সেতুতে উঠে পড়ে। পরে বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব থানা উপ-পরিদর্শক (এসআই) রঞ্জু মোটর সাইকেল নিয়ে গাড়িটির পিছু নিয়ে সেতুর পূর্ব পাড় থেকে আটক করে। এসময় কভারভ্যানের চালক ও অন্যান্যরা পালিয়ে যায়। পরে গাড়িটি আটক করে রাসেল নামের এক চালকের সহায়তায় এসআই রঞ্জু পূর্বপাড়ের ৪নং লেনের টোলপ্লাজার বেড়িয়ার ভেঙে গাড়ি ও মোটরসাইকেল নিয়ে সেতুর পশ্চিম থানায় নিয়ে যায়।

এসময় টোল আদায়ে নিয়োজিত অপারেটররা গাড়ির ও মোটরসাইকেলের টোল চাইলে ওই পুলিশ কর্মকর্তা টোল না দিয়ে বেড়িয়ার ভেঙে চালককে সেতু পার করতে নির্দেশ দেন।

বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) জহুরুল ইসলাম জানান, গাড়িটি আটক করতে পারলেও গাড়ির চালকসহ অন্যান্যরা পালিয়ে গেছে। এসময় গাড়িতে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল পাওয়া গেছে। গাড়িটি আনতে পূর্বপাড়ে টোল দেয়া হয়নি। তবে পরবর্তিতে টোলের টাকা সেতু কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে। তবে সেতুর টোল বেড়িয়ার ভাঙার কোন ঘটনা ঘটেনি।

বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের বঙ্গবন্ধু সেতুর তত্ত্বাবধায় প্রকৌশলী তোফাজ্জল হোসেন জানান, বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিমের পুলিশের ওই কর্মকর্তা টোল না দিয়ে বেড়িয়ার ভেঙে গাড়ি পাড় করেছেন। এবিষয়ে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিষয়টি অবহিত করা হবে বিভাগীয় বিচারের জন্য। এছাড়া সেতু কর্তৃপক্ষের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সাথে পরামর্শ করে পরবর্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Related Articles