মির্জাপুরে কাঠ পুঁড়িয়ে কয়লা তৈরির ৪০টি কারখানা গুড়িয়ে দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত: ১জনের জেল

মির্জাপুর প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ভ্রাম্যমান আদলতের মাধ্যমে কাঠ পুঁড়িয়ে কয়লা তৈরির ৪০টি কারখানা গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

সোমাবার দুপুরে মির্জাপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক মো. মাঈনুল হকের নেতৃত্বে উপজেলার আজগানা ইউনিয়নের আজগানা, খাটিয়ারহাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩৯টি কারখানা গুড়িয়ে দেয়া হয়। এছাড়া রবিবার বিকেলে পৌর এলাকার বাওয়ার কুমারজানি গ্রামে অভিযান চালিয়ে কয়লা তৈরির একটি কারখানা গুড়িয়ে দিয়ে কারখানার মালিক আক্কাছ আলীকে তিন দিনের সাজা দেয়া হয়েছে। এ সময় কারখানা থেকে বিপুল পরিমাণ কয়লা জব্দ করেন বিচারক।

জানা গেছে, উপজেলার পাহাড়ি অঞ্চলের আজগানা ইউনিয়নের আজগানা ও খাটিয়ারহাটে এলাকায় স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি জনবসতি এলাকায় অবৈধভাবে কয়লা তৈরির কারখানা স্থাপন করে কাঠ পুড়িয়ে আসছিল। কাঠ পুড়ানো ধোঁয়ায় পরিবেশের মারাত্বক দুষণ হয়।

খবর পেয়ে মির্জাপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক মো. মঈনুল হকের নেতৃত্বে উপজেলার আজগানা ইউনিয়নের আজগানা, খাটিয়ারহাট ও পৌর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪০টি অবৈধ কয়লা তৈরির কারখানা ধ্বংস করা হয়। এ সময় কুমারজানি এলাকার কারখানা থেকে বিপুল পরিমাণ কয়লা জব্দ করা হয়। এতে মির্জাপুর ফায়ার স্টেশন ও মির্জাপুর থানার পুলিশ সদস্যরা সার্বিক সহায়তা করেন।

ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক মির্জাপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মাঈনুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অবৈধভাবে গড়ে তোলা কাঠ পুড়ানো কারখানার ধোয়া পরিবেশের মারাতœক ক্ষতি করছে। পরিবেশ রক্ষায় এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

Related Articles