টাঙ্গাইলে কাউন্সিলরের বাসায় প্রথম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ধর্ষিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইল পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের পৌর কাউন্সিলর হেলার ফকিরের শহরের আকুরটাকুর পাড়া বাসায় প্রথম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার মেয়ের দাদা বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন।
পুলিশ সূত্রে ও মামলার বিবরণে জানা যায়, ৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হেলাল ফকিরের পশ্চিম আকুর টাকুর পাড়া হাউজিং মাঠের বাসায় ওই এলাকার মৃত তারাব আলীর ছেলে মো. বাচ্চু (৫০) নামে এক ব্যক্তি ভাড়া থাকতো। একই বাসায় ওই শিক্ষার্থীর দাদা-দাদিও ভাড়া থাকে। শিক্ষার্থীর বাবা ঢাকায় সিএনজি চালানোর সুবাধে বাবা মা ঢাকায় থাকে। গত ১ সেপ্টেম্বর রোববার শিক্ষার্থীকে বাসায় একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। শিক্ষার্থীর চিৎকারে আশে পাশের লোকজন এগিয়ে আসলে বাচ্চু পালিয়ে যায়। বিষয়টি প্রথমে পারিবারিক সমাধান করার চেষ্টা করলে পরবর্তীতে তা সম্ভব হয়নি। পরে শিক্ষার্থীকে ২ সেপ্টেম্বর রাত ১২ টায় চিকিৎসার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শিক্ষার্থী বর্তমানে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।

এ বিষয়ে কাউন্সিলর হেলাল ফকির বলেন, বিষয়টি আমি জানার পর পারিবারিকভাবে সমাধানের চেষ্টা করি। কিন্তু আসামী পলাতক থাকায় এখনও মিমাংসা করা সম্ভব হয়নি। পরে মঙ্গলবার শিক্ষার্থীর দাদা বাদি হয়ে টাঙ্গাইল মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় ধর্ষকের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবিও জানান তিনি।

এ বিষয়ে সদর পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক আমির হামজা বলেন, গত ২ সেপ্টেম্বর অভিযোগ পাওয়ার পর শিক্ষার্থীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মো. বাচ্চু পলাতক রয়েছে।

Related Articles