গোপালপুরে ৫ বছরের শিশু ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত ধর্ষকের বাবা বাবা মা গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলের গোপালপুরে ৫ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা বাদি হয়ে গোপালপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পর অভিযুক্ত ধর্ষককে পালাতে সাহায্যে করায় তার পিতা মাতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
মামলার বিবরণে জানা যায়, গতকাল শনিবার উপজেলার ঝাওয়াইল ইউনিয়নের চর সোনামুই গ্রামের মো. রফিকুল ইসলামের ছেলে মো. রাসেল (১৫) পাশের বাড়ির ৫ বছরের ওই শিশুকে চকলেট দেওয়ার কথা বলে নিজের কক্ষে ডেকে নিয়ে জোড় পূর্বক ধর্ষণ করে। শিশুটির আত্মচিৎকারে আশে পাশের লোকজন এগিয়ে আসলে অভিযুক্ত রাসেল পালিয়ে যায়। বাড়ি গিয়ে শিশুটি তার মাকে ঘটনার বিস্তারিত জানায়। পরে রাতে শিশুটির বাবা বাদি হয়ে গোপালপুর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলার পর থেকে অভিযুক্ত মো. রাসেল পলাতক রয়েছে।
মেয়ের বাবা বলেন, আমার অবুঝ শিশু যে এতো বড় ক্ষতি করেছে তাকে গ্রেফতার করে ফাঁসি দাবি করছি। লম্পটের ফাঁসি দেখে ভবিষ্যতে আর কেউ যাতে এ ধরনের অপরাধ করতে না পারে।
এ বিষয়ে গোপালপুর থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এ ঘটনায় শনিবার রাতেই ওই শিশু বাবা বাদি হয়ে গোপালপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই শিশুটির পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মামলার পর অভিযুক্ত ধর্ষককে পালানোর সহযোগিতা করায় অভিযুক্ত ধর্ষকের বাবা রফিকুল ইসলাম ও মাকে গ্রেফতার করে। রোববার গ্রেফতারকৃত বাবা মাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়। আদালতে বাবার ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে টাঙ্গাইল আদালত মো. রাসেলের বাবা রফিকুল ইসলামের ১ রিমান্ড মঞ্জুর করে। অভিযুক্ত ধর্ষককে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

Related Articles