মির্জাপুরে মাদক বিক্রিতে বাধা দেওয়ায় সাবেক সেনা সদস্যকে মারধর ॥ থানায় অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে মাদক বিক্রিতে বাধা দেওয়ায় সাবেক সেনাবাহিনীর সদস্য মো. মহিদুর রহমান খানকে মারধর করেছে মাদক ব্যবসায়ীরা। সে উপজেলার ওয়ার্শী ইউনিয়নের সার্ফতা গ্রামের মৃত আ. করিম খানের ছেলে। এ বিষয়ে মো. মহিদুর রহমান খান বাদি হয়ে মির্জাপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ৩ নভেম্বর রোববার সকাল ১১ টায় প্রয়োজনীয় কাজ শেষে নিজ বাড়ি ফেরার পথে জনৈক মামুন মিয়ার মুদি দোকানের সামনে পথ অবরোধ করে বিবাধী একই গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মদ খানের ছেলে নাসির খান (৪০)সহ কয়েক জন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মো. মহিদুর রহমান খানকে মারধর করতে থাকে। মো. মহিদুর রহমান খানের আত্ম চিৎকারে বিবাধী পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে জামুর্কি সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।
এ বিষয়ে সাবেক সেনাবাহিনীর সদস্য মো. মহিদুর রহমান খান বলেন, আমি মাদকের বিরুদ্ধে আগে থেকে কাজ করি। আমার গ্রামে বিবাধী নাসির খানসহ বেশ কয়েকজন ইয়াবা, ফেন্সিডিলসহ বিভিন্ন মাদক সরবরাহ করে আসছে। মাদক বিক্রিতে তাদের বাধা প্রদান করায় তারা আমাকে প্রাণ নাশের হুমকি পর্যন্তও দিয়েছেন। গত রোববার বাড়ি ফেরার পথে নাসির খান গং আমাকে চাকু দিয়ে ঘা দেওয়াসহ কিল, ঘুষি, লাথি মারছে।

Related Articles