টাঙ্গাইলে শর্মা হাউজের খাবারে কাঁচের টুকরো; লাখ টাকা জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

টাঙ্গাইল শহরের শর্মা হাউজে অভিযান চালিয়ে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। রোববার বিকেলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: রোকনুজ জামান এই অভিযান পরিচালনা করেন। এর আগে শনিবার রাতে

শর্মা হাউজে খাওয়ার সময় খাবারে থাকা কাঁচের টুকরোর আঘাতে সরকারি কুমুদিনী কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ড. আজাদ খানের জিহ্বা কেটে যায়। পরে তিনি জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ওই শর্মা হাউজের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: রোকনুজ জামান বলেন, টাঙ্গাইল শহরের পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে অবস্থিত শর্মা হাউজ নামক ফাস্টফুডে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ, নি¤œমানের খাবার পরিবেশনসহ বিভিন্ন

কারণে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইন অনুযায়ী ৮০ হাজার টাকা এবং বাংলাদেশ হোটেল ও রেস্তোরা আইন অনুযায়ী ২০ হাজার টাকা জরিমানা এবং জরিমানা অনাদায়ে একজনকে তিন মাসের কারদ- দেওয়া হয়। এছাড়া পাশের ছেফাত হোটেলে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এ অভিযান অব্যহত থাকবে বলে তিনি জানান।

ড. আজাদ খান বলেন, শনিবার রাতে টাঙ্গাইল শর্মা হাউজে আমি রাতের খাবার (মাটন বিরিয়ানী) খাচ্ছিলাম। খাবারের মধ্যে থাকা কাঁচের টুকরোর আঘাতে আমার জিহ্বার বাম পাশে কেটে রক্ত বের হতে থাকে। এ ঘটনার প্রতিকার পেতে আমি ৯৯৯ এবং ৩৩৩ নম্বরে কল করি। কিছুক্ষণের মধ্যেই সেখানে পুলিশ আসে। পরে জিহ্বার রক্তক্ষরণ বন্ধ না হওয়ায় রাতেই টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা গ্রহণ করি।

রোববার সকালে ড. আজাদ খান জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ওই শর্মা হাউজের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। তিনি বলেন, খাবার পরিবেশনে কর্তৃপক্ষের এমন অবহেলা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না। এখানে মানুষের জীবনের নিরাপত্তার বিষয়টি জড়িত। এজন্য আমি আইনের আশ্রয় গ্রহণ করেছি।

(এম কন্ঠ/আর.কে/৩০ ডিসেম্বর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles