এবারের ‘ইত্যাদি’ ৩১ জানুয়ারি, ধারণকৃত তেঁতুলিয়ায়

বিনোদন রিপোর্ট:

 

হানিফ সংকেত রচিত, পরিচালিত ও উপস্থাপিত দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় বিনোদনধর্মী টিভি ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানের নাম ‘ইত্যাদি’। প্রতিবারই দেশের নানা ঐতিহ্যবাহী ও গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় এই অনুষ্ঠানের মঞ্চ তৈরি ও দৃশ্যধারণ করা হয়। তুলে ধরা হয় সেসব এলাকার শিক্ষা, সাহিত্য, ইতিহাস, ঐতিহ্য, সভ্যতা ও প্রামীণ সংস্কৃতির নানা চিত্র।

সেই ধারাবাহিকতায় এবারের ‘ইত্যাদি’র মঞ্চ তৈরি ও দৃশ্যধারণ করা হয়েছে হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত আঁকাবাঁকা সীমান্ত পরিবেষ্টিত বাংলাদেশের সর্বোত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়। মঞ্চ বসেছে তেঁতুলিয়া সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে। ১৯৭১ সালে মুক্তিযোদ্ধাদের বাছাই, প্রশিক্ষণ, গোলা-বারুদ সংরক্ষণ ও বিতরণ করা হয়েছিল এই মাঠ থেকেই।

নদী ও ভূমি থেকে পাথর উত্তোলন, সমতল ভূমিতে চা বাগান, মুক্তিযুদ্ধের গৌরবগাঁথা ও পঞ্চগড়ের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের সঙ্গে সাদৃশ্য রেখে নির্মাণ করা আলোকিত মঞ্চের সামনে লক্ষাধিক দর্শকের উপস্থিতিতে ধারণ করা হয়েছে এবারের ‘ইত্যাদি’। সেখানে রয়েছে পঞ্চগড়ের ইতিহাস, ঐতিহ্যর পাশাপাশি পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় এবং মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত স্থানগুলোর ওপর তথ্যভিত্তিক প্রতিবেদন।

দেশের একমাত্র পাথরের জাদুঘর রক্স মিউজিয়াম এবং পঞ্চগড়ের সমতলে চা চাষের ওপরও রয়েছে দুটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন। রয়েছে ঠাকুরগাঁওয়ের নবম শ্রেণির মেধাবী ছাত্রী ও শিক্ষানুরাগী সুখী আক্তারের জীবন সংগ্রামের ওপর একটি হৃদয়স্পর্শী প্রতিবেদন। আরও আছে বার্সেলোনায় পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় স্থান মিউজিয়াম অব ইলুউশনের ওপর একটি সচিত্র প্রতিবেদন।

অনুষ্ঠানে পঞ্চগড় জেলা ও তেঁতুলিয়ার উল্লেখযোগ্য কিছু বিষয় নিয়ে মোহাম্মদ রফিকউজ্জামানের কথায় এবং হানিফ সংকেতের সুর ও মেহেদীর সংগীতায়োজনে একটি গানের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করেছেন পঞ্চগড় ও তেঁতুলিয়ার প্রায় দেড় শতাধিক নৃত্যশিল্পী। ‘ইত্যাদির এই পর্বটি একযোগে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচারিত হবে আগামী ৩১ জানুয়ারি রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর।

(মজলুমের কণ্ঠ/২৬জানুয়ারি/আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles