কৃষিকে যেকোন মূল্যে লাভজনক করতে হবে-কৃষিমন্ত্রী

কৃষিকে যেকোন মূল্যে লাভজনক করতে হবে-কৃষিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

কৃষিমন্ত্রী মো. আব্দুর রাজ্জাক (এমপি) বলেছেন, কৃষিকে আধুনিকীকরণ, যান্ত্রিকীকরণ এবং বাণিজ্যিকীকরণ করতে হবে। এজন্যই চাষ-আবাদ, ফসল কাটা, মারাই বিশেষ করে ধান লাগানো এবং কাটার মেশিন কৃষক পর্যায়ে দেয়া হচ্ছে। ৫০ ভাগ ভর্তুকিতে এসব কৃষি যন্ত্রপাতি কৃষকদের মাঝে বিতরণ করা হচ্ছে। কৃষিকে যে কোন মূল্যে লাভজনক করতে হবে। এ জন্য যা-যা করণীয় তার সবকিছুই করে যাচ্ছে বর্তমান সরকার।

তিনি সোমবার টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলার ভাতকুড়া গ্রামের কৃষকদের মাঝে ভর্তুকি মূল্যে কৃষিযন্ত্রপাতি বিতরণ ও রাইস প্লান্টারের মাধ্যমে বোরো ধানের চারা রোপণ কার্যক্রম উদ্বোধন উপলক্ষে কৃষক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, উচ্চ ফলনশীল ধানের জাত ও বিভিন্ন ফসলের জাত উদ্ভাবন করা হচ্ছে। দশ-এগারো বছর সাধনা করে আমাদের কৃষি বিজ্ঞানিরা এক-একটা উন্নত জাতের ফসলের জাত উদ্ভাবন করে যাচ্ছেন। যার ফলে এখন বিঘা প্রতি পাঁচ-ছয় নয়, এখন ৩০/৩৫ মণ ধান উৎপাদন হয়।

তিনি বলেন, আগে সারের জন্য লাইন ধরতে হতো। আমরা সারের দাম কমিয়ে সহজলভ্য করেছি। বিএনপি-জামায়াত সরকারের আমলে যে ডিএপি সার ছিলো ৯০ টাকা কেজি। সেই ৯০ টাকা কেজির ডিএপি সার এখন ১৬ টাকায় করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর স্বপś ছিলো ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত সোনার বাংলা গড়া। তারই কন্যা শেখ হাসিনা এখন বাংলাদেশটাকে শুধু ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্তই নয়, খাদ্যে উবৃত্তের দেশ বানিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, উনśত এই শান্তিপ্রিয় দেশে বিএনপি-জামায়াত অশান্তি করতে চায়। তিনি খালেদা-তারেকের নাম উল্লেখ করে বলেন, শেখ হাসিনার এই শান্তির দেশে কেউ অশান্তি করতে চাইলে তাদেরকে উচিত শিক্ষা দেয়া হবে।

উপজেলা কৃষি বিভাগ আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কৃষি সচিব মো. নাসিরুজ্জামান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহা পরিচালক মো. আব্দুল মুঈদ, ধান গবেষনা ইনস্টিটিটের মহাপরিচালক মো. শাহজাহান কবীর, কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিটের মহাপরিচালক আবুল কালাম আযাদ, ধনবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হারুনার রশিদ, পৌর মেয়র খন্দকার মঞ্জুরুল ইসলাম, কৃষক আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

(এম কন্ঠ/আর.কে১৪জানুয়ারি )

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles