টাঙ্গাইলের আকাশে মেলেনি সূর্য মামার দেখা

নিজস্ব প্রতিবেদক

পৌষ ও মাঘ শীতকাল। পৌষ এখন যায়যায়। মাঘের অপেক্ষায়। এসময়ে শীত থাকাটা অস্বাভাবিক কিছু না। কিন্তু গত সপ্তাহে হঠাৎ শীত কমে তাপমাত্রা স্বাভাবিক অস্থায় চলে এসেছিল। এরপর টানা তিনদিন চলল এই বৃষ্টি-এই শীত। গতরাত থেকে টাঙ্গাইলে শীতের মাত্রা অনেকটাই বেড়েছে। মঙ্গলবার সারাদিন টাঙ্গাইলের আকাশে মেলেনি সূর্যের দেখা।

 

ফলে শীতের তীব্রতা আবারও বেড়ে গেছে। সোমবার বিকাল থেকে উত্তরের জেলাগুলোর মতো কনকনে শীত অনুভূত হচ্ছে টাঙ্গাইলেও। এতে বেকায়দায় পড়েছে ছিন্নমূল মানুষ। কাজের সন্ধানে সকাল সকাল ঘর থেকে বের হওয়া মানুষগুলো পড়েছে চরম ভোগান্তিতে। সবচেয়ে বিপাকে পড়েছেন শিশু ও বৃদ্ধরা। স্কুল পড়ুয়া ছাত্রছাত্রীরাও পেড়েছে বেকায়দায়।

 

এছাড়া দেশের বিভিন্ন এলাকায় মৃদু থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এই শৈত্যপ্রবাহ আরও দীর্ঘ সময় হতে পারে। এতে শীতের কাঁপুনি আরও বাড়তে পারে বলে আভাস দিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। মঙ্গলবার সকালে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ৬.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। ওই সময় ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১১.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। টাঙ্গাইলে তাপমাত্রা ছিলো ৯.৬ ডিগ্রী।

 

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার আকাশ আংশিক মেঘলা থাকতে পারে, সারাদেশে মোটামুটি শুষ্ক আবহাওয়া বিরাজ করতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের উত্তর পশ্চিমাংশে এবং নদী অববাহিকায় হালকা থেকে মাঝারি মাত্রার কুয়াশা থাকতে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা আরও একটু কমতে পারে, তবে বৃহস্পতিবার দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে।

 

(এম কন্ঠ/আর.কে/ ০৭ জানুয়ারি )

সংবাদটি শেয়ার করুন

 

 

Related Articles