টাঙ্গাইলে ছেলে হত্যায় সৎ মায়ের স্বীকারোক্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক

টাঙ্গাইলে শ্বাসরোধ করে সাইফ উদ্দিন (৮) নামের এক শিশুকে হত্যার ঘটনায় তার সৎ মা সাবরিনা বেগম আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। সোমবার (২০ জানুয়ারি) বিকালে টাঙ্গাইলের সিনিয়র চিফ জুডিশিয়াল আদালতের বিচারক মুনিরা সুলতানার নিকট তিনি এ জবানবন্দি প্রদান করেন। নিহত শিশু সাইফ টাঙ্গাইল শহরের আমিন বাজার এলাকার সালাউদ্দিনের ছেলে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি-দক্ষিণ) ওসি শ্যামল কুমার দত্ত জানান, শহরের আমিন বাজার এলাকায় সাইফের বাবা ভাড়া বাসায় থাকতেন। নিহত সাইফের সৎ মা গত শনিবার (১৮ জানুয়ারি) রাত আটটার দিকে ফোন করে সাইফের বাবা সালাউদ্দিনকে জানান অজ্ঞাতনামা তিনজন দুস্কৃতিকারী তাদের বাসায় ঢুকে তার ও ছেলের হাত-পা বেধে স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে গেছে। তারা সাইফকে বাথরুমে পানির বালতিতে ডুবিয়ে রেখে গেছে যাওয়ার সময়। ফোন পেয়ে সাইফের বাবা তার কম্পিউটার সেন্টার থেকে বাসায় গিয়ে ছেলেকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। এসময় ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, টাঙ্গাইল সদর থানা পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশ সাবরিনা নাহারের ঘটনার বর্ণনাটি রহস্যজনক মনে করে। পরে পুলিশ সাবরিনা বেগম ও তার স্বামী সালাউদ্দিনকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে সাবরিনা সাইফকে হাত-পা বেঁধে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার বিষয়টি বের হয়ে আসে। পরে তিনি আদালতে জবানবন্দি দেন।

(মজলুমের কণ্ঠ/২১জানুয়ারি/আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles