মিন্নির জামিন বাতিলের শুনানি ২৬ জানুয়ারি

নিজস্ব প্রতিবেদক :

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় উচ্চ আদালতে জামিনে থাকা আসামি রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির জামিন বাতিল আবেদনের আদেশের শুনানির জন্য ২৬ জানুয়ারি দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বুধবার বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে জামিন বাতিল না করার কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাব দাখিল করেন মিন্নির আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম। একইদিন রিফাত হত্যা মামলায় তিনজন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ সম্পন্ন করেন বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

তারা হলেন নিহত রিফাতের বন্ধু মঞ্জুরুল আলম জন, জাকারিয়া বাবু ও আনোয়ার হোসেন। এ নিয়ে চাঞ্চল্যকর ওই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় করা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক আসামিদের বিরুদ্ধে ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

মিন্নির আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম জানান, মিন্নির জামিন কেন বাতিল হবে না, এ মর্মে আদালতের দেওয়া শোকজের জবাব আদালতে দাখিল করেছি। উভয়পক্ষের আইনজীবীদের আবেদনের জন্য শোকজের জবাব শুনানি আগামী ২৬ জানুয়ারি ধার্য করেছেন আদালত।

এছাড়া মিন্নি জামিনে থাকাবস্থায় কোনো প্রকার জামিনের শর্ত ভঙ্গ করেনি। মিন্নিকে হয়রানি করার জন্য জামিন বাতিলের আবেদন করা হয়েছে। একটি মেয়ে অপরিচিত পাঁচজন যুবক নিয়ে দূরে সাক্ষীদের বাড়িতে গিয়ে হুমকি দিয়েছে এটা বিশ্বাসযোগ্য নয়।

গেল বছরের ২৬ জুন বরগুনা শহরের কলেজ রোডে রিফাতকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। ওই ঘটনার একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে দেশজুড়ে আলোচনা শুরু হয়।

রিফাতকে হত্যার ঘটনায় বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে ১২ জনকে আসামি করে বরগুনা থানায় হত্যা মামলা করেন। ওই মামলায় মিন্নিকে ১ নম্বর সাক্ষী করা হলেও পরে হত্যাকাণ্ডে পুত্রবধূ মিন্নির জড়িত থাকার অভিযোগ তোলেন রিফাতের বাবা। এরপর মিন্নিকে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ। মিন্নি হাইকোর্ট থেকে শর্তসাপেক্ষে জামিন নিয়ে বাবার বাড়িতে আছেন।

আর মামলার প্রধান সন্দেহভাজন সাব্বির আহম্মেদ ওরফে নয়ন বন্ড গত বছরের ২ জুলাই পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন। গত ১ সেপ্টেম্বর মিন্নিসহ রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামি ও অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে পৃথক অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।

(মজলুমের কণ্ঠ/১৫জানুয়ারি/আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles