টাঙ্গাইলে কলেজ ছাত্র হত্যায় প্রধান আসামীর স্বীকারোক্তি

টাঙ্গাইলে কলেজ ছাত্র হত্যায় প্রধান আসামীর স্বীকারোক্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক

টাঙ্গাইলে কলেজ ছাত্র তানভীর মাহতাব ওরফে ইশরাককে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার প্রধান আসামী সোহানুর রহমান সোহান সোমবার আদালতে স্বীকারোক্তি মুলক জবানবন্দি দিয়েছেন। রিমান্ড শেষে গ্রেপ্তারকৃত অপর দুই আসামীসহ তিনজনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

সোমবার সোহানকে (২১) টাঙ্গাইল চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। জ্যেষ্ঠ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমিনুল ইসলাম তার জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করেন। পরে তাকে টাঙ্গাইল জেল হাজতে পাঠানো হয়। রোববার ভোরে সোহানকে বগুড়া থেকে গ্রেপ্তার করে টাঙ্গাইল সদর থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারের পর জিজ্ঞাসাবাদকালে তিনি এই হত্যাকান্ডের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে এবং আদালতে জবানবন্দি দিতে রাজি হন। সোহান শহরের আশেকপুর এলাকার আলমগীর হোসেনের ছেলে।

এর আগে এই মামলায় গ্রেপ্তারকৃত অপর দুই আসামী সিহাব ও সাব্বিরকে তিন দিনের রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করে পুলিশ। পরে আদালত তাদের জেল হাজতে পাঠিয়ে দেন।

প্রসঙ্গত, টাঙ্গাইল ইন্সটিটিউট অব সাইন্স এন্ড টেকনোলোজির টেক্সটাইল বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র তানভীর মাহতাব ইশরাককে গত বুধবার বিকেলে শহরের নজরুল সেনা স্কুলের সামনে কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠান। ঘটনাস্থলের কাছে একটি ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার ফুটেজ দেখে পুলিশ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের সনাক্ত করে। নিহত ইশরাকের বাবা ইব্রাহিম খলিল বাদি হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

(মজলুমের কণ্ঠ/১১ ফেব্রুয়ারি/আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles