টাঙ্গাইলে বাসচাপায় দুই ম্যাটস শিক্ষার্থী নিহত; সহপাঠীদের বিক্ষোভ

টাঙ্গাইলে বাসচাপায় দুই ম্যাটস শিক্ষার্থী নিহত; সহপাঠীদের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব পাড়ে গোলচত্ত্বর এলাকায় বাসচাপায় ম্যাটসের দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় চালককে গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে তাদের সহপাঠীরা। সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সামনে ঘন্টাব্যাপী বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে তারা।

এর আগে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে থেকে শোক র‌্যালি বের করে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সামনে সমবেত হয়। মানববন্ধনে জেলার সরকারি ও বিভিন্ন বেসরকারি ম্যাটসের সহ¯্রাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ডিপ্লোমা মেডিকেল এসোসিয়েশন জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ডা. আমিনুল ইসলাম, ইন্টার্ন ডিপ্লোমা মেডিকেল এসোসিয়েশন জেলা শাখার সভাপতি রাসেল সরকার, আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি আ. বাতেন, রাজু আহমেদ প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, বর্তমান সময়ে নেশাগ্রস্ত ও প্রশিক্ষণ ছাড়া চালক দিয়ে গাড়ি চালানো হচ্ছে। এর ফলে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন সড়কে দুর্ঘটনা হচ্ছে। এভাবে আর কত প্রাণ ঝড়বে সড়কে। কত মায়ের বুক খালি করবে নেশাগ্রস্ত চালকরা। আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে ঘাতক বাসের চালক ও হেলপারকে গ্রেফতার না করা হলে কঠোর থেকে কঠোরতর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন বক্তারা। এছাড়া নিরাপদ সড়কে দাবিও করেন তারা।

প্রসঙ্গত, রবিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বেড়াতে গিয়ে টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু সেতু গোলচত্ত্বর এলাকায় বাসচাপায় মাঈন উদ্দিন হামীম তুর্য্য (২৪) ও সাদিয়া ইসলাম নদী (২৬) নামে দুই মেডিকেল ইন্টার্ট চিকিৎসক নিহত হয়। নিহত মাঈন উদ্দিন লক্ষীপুর সদর উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের মৃত মুসলিম উদ্দিনের ছেলে ও সাদিয়া গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া উপজেলার তরগাঁও গ্রামের সাইদুর রহমানের মেয়ে। নিহতরা টাঙ্গাইল মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট ট্রেনিং স্কুলের( ম্যাটস) শিক্ষার্থী ছিলেন। এ ঘটনায় ওইদিন রাত ঘাতক বাসের চালক ও হেলপারের গ্রেপ্তারের দাবিতে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের সামনে সড়ক অবরোধ করে ম্যাটসের শিক্ষার্থীরা। পরে পুলিশের আশ্বাসে তারা রাত সাড়ে ১১টার দিকে অবরোধ তুলে নেয়।

(মজলুমের কণ্ঠ/১৭ ফেব্রুয়ারি/আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles