রিলাক্সে খেলতে চায় অনূর্ধ্ব-১৯ বাংলাদেশ দল

নিউজ ডেস্ক :

২০১৬ সালে আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের আসর বসেছিল বাংলাদেশে। সেবার ফেভারিট ছিল স্বাগতিকরা। শিরোপা জয়ের স্বপ্ন নিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করলেও সেবার মেহেদী হাসান মিরাজের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ সেমিফাইনাল থেকে বাদ পড়েছিল।

কিন্তু এবারের আসরে আর সেমিফাইনাল থেকে বাদ পড়েনি বাংলাদেশ। দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমে বৃহস্পতিবার সেমিফাইনাল ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ৬ উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে উঠে গেছে টাইগার যুবারা।

৯ ফেব্রুয়ারি ফাইনাল ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ভারত। কিন্তু প্রতিপক্ষ যত কঠিনই হোক না কেন, এই ম্যাচে চাপ নিতে চায় না বাংলাদেশ দল। দলের অধিনায়ক আকবর আলী বলেছেন, ‘আমরা অন্য ৮-১০টা ম্যাচের মতোই খেলব। আমাদের প্রথম ফাইনাল, এটা ভেবে চাপ নেব না। ভারত খুব ভালো দল। আমাদের নিজেদের খেলাটা খেলতে হবে। তিন বিভাগেই আমাদের সেরাটা দিতে হবে।’

সেমিফাইনালের মত গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে সেঞ্চুরি করেন বাংলাদেশ দলের ডানহাতি ব্যাটসম্যান মাহমুদুল হাসান জয়। এই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেই দ্বিপাক্ষিক সিরিজে ৯৯ রানে আউট হয়েছিলেন তিনি। তবে এবার আর ভুল করেননি জয়। সেঞ্চুরি পূর্ণ করে বাংলাদেশকে ফাইনালে তুলেন জয়। তবে যখন ৯৯ রানে ছিলেন, আবারো মনের মধ্যে ভয়-শঙ্কা জেগেছিল জয়ের।

ম্যাচ শেষে জয় বলেন, ‘সর্বশেষ নিউজিল্যান্ড সিরিজে আমি ৯৯ রানে আউট হয়েছিলাম। কিন্তু সেই ভুল এই ম্যাচে করতে চাইনি। এক-দুই রান করে নিয়েছি। তবে ৯৯ রানের সময় একটু নার্ভাস ছিলাম। যখন সেঞ্চুরিটা হলো, তখন ভয় কেটে গেছে।’

তবে সেঞ্চুরি করেও কিছুটা আক্ষেপ রয়েছে জয়ের। কিন্তু কেন! সেটি নিজেই জানালেন জয়, ‘অবশ্যই আমি সন্তুষ্ট নই। কারণ দল চাচ্ছিল আমি অপরাজিত থাকি। ম্যাচ শেষ করে আসতে পারলে আরও ভালো হতো। অপরাজিত থাকলে সন্তুষ্টি আসত।’

(মজলুমের কণ্ঠ/৮ ফেব্রুয়ারি/আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles