শশুরবাড়িতে আত্মহত্যা; অভিযোগ স্ত্রীর পরকিয়া

ভূঞাপুর প্রতিনিধি :

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে স্ত্রীর পরকিয়ার অভিমানে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে জাহাঙ্গীর আলম নামের এক স্বামী।
মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার রাজাপুর গ্রাম থেকে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেছে। নিহত জাহাঙ্গীর গোপালপুর উপজেলার উড়িয়াবাড়ি গ্রামের মৃত হোসেন আলীর ছেলে।

জানা গেছে, জাহাঙ্গীর আলমের সাথে ভূঞাপুর উপজেলার অজুর্না ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের হায়দার আলীর মেয়ে লাভলীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই জাহাঙ্গীর শশুর বাড়িতে বসবাস করতো। পরে ওই রাজাপুর গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে আমিনুর বাবুর সাথে পরকিয়ায় জড়িয়ে পরে স্ত্রী লাভলী। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সৃষ্টি হয় পারিবারিক কলহের।

নিহতের বড় ভাই সাঈদ জানান, জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রীর সাথে আমিনুরের অবৈধ সর্ম্পক ছিল। এনিয়ে গ্রামে শালিশি বৈঠকও হয়েছে। ওই বৈঠকে আমিনুরকে পরকিয়ার কারনে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছিল কিন্তু সেই টাকা নেয়া হয়নি। এরপরও তাদের সম্পর্ক অটুট ছিল। স্ত্রী পরকিয়া থেকে না ফেরায় অভিমানে জাহাঙ্গীর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এবিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ভূঞাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশিদুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার দুপুরে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

(মজলুমের কণ্ঠ/১১ ফেব্রুয়ারি/আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles