ভূঞাপুরে হাট বাজার এখনও সরব

ভূঞাপুরে হাট বাজার এখনও সরব

অভিজিৎ ঘোষ:

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে সাপ্তাহিক ও দৈনিক হাট-বাজারগুলোতে মানুষের সরব উপস্থিতি দেখা গেছে। তা ছাড়া করোনাভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখছে না তারা। উপজেলার কয়েকটি হাট-বাজারে গিয়ে এমন চিত্র দেখা গেছে।

যদিও উপজেলা প্রশাসন, সেনাবাহিনী ও পুলিশ প্রশাসন প্রতিনিয়ত গ্রাম পর্যায়ের হাট-বাজারগুলোতে গিয়ে মানুষকে সচেতন করতে নিয়মিত প্রচারণাসহ অকারনে বাইরে বের না হওয়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। চালানো হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের প্রচারনা। তারপরও গ্রাম পর্যায়ের এসব মানুষজন হাট-বাজারগুলো সমাবেত হচ্ছে।

জানা গেছে, করোনাভাইরাস আতঙ্কে ভাইরাস সংক্রমনরোধে সরকার সারাদেশে সাধারন ছুটি ঘোষণা করে। এতে মানুষজন শহর থেকে গ্রামে চলে আসে। কিন্তু গ্রামে এসে কোয়ারেন্টাইন না মেনে অকারনেই হাট-বাজারগুলো ভীর জমাচ্ছেন। মানছেন না সামাজিক দুরত্ব।

রবিবার সরেজমিনে উপজেলার গোবিন্দাসী হাটে গিয়ে মানুষের সরব উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। সামাজিক দুরত্ব না মেনেই হাট-বাজারে কেনাকাটায় ব্যস্ত সময় পাড় করছেন তারা। এছাড়া বামনহাটা, গাবসারা হাট, অজুর্নার গোবিন্দপুর, নিকরাইল ও পৌরসভার শিয়ালকোল হাটে মানুষের উপস্থিতি দেখা গেছে। এছাড়া দৈনন্দিন বাজারগুলোতে মানুষ ভীর করছে। তবে প্রশাসন ওইসব হাট-বাজারগুলো অভিযান চালালেও পরে পুনরায় আবার মানুষ চলে আসে বাজারে।

হাট-বাজারে আসা মানুষরা জানান, লকডাউন করা ছাড়া মানুষের সমাগম বন্ধ করা সম্ভব নয়। আবার হাট বন্ধ থাকলে মানুষ আর হাটে আসবে না।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা. নাসরীন পারভীন বলেন, হাট বাজার বন্ধে আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। তবে বাজার কমিটি এবং ইউপি চেয়ারম্যানদের অসহযোগিতার কারণে শত ভাগ সফলতা আসেনি।

(মজলুমের কণ্ঠ/২৯ মার্চ/আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles