টাঙ্গাইলে পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনের বহিস্কৃত ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক:

টাঙ্গাইলে গ্রাহকদের টাকা আত্মসাদের অভিযোগে পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনের বহিস্কৃত ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মদন মোহন সাহাকে (৫৮) কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বাসাইল থানা আমলী আদালতে হাজিরা দিতে গেলে তাকে কারাগারের পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। তিনি ঢাকার তেজগাঁও শেলটেক গ্রামের শিশু রঞ্জন সাহার ছেলে। এর আগে তার বিরুদ্ধে টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার নাকাছিম গ্রামের রাই মহন মন্ডলের স্ত্রী ও বাসাইল পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনের সদস্য নয়ন তারা রানী (৫২) বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, জ্বর কাশি, হাচিসহ নানা রোগের প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য প্রতি উপজেলায় দুই হাজার ৫০০ জন সদস্য করার টার্গেট দেওয়া হয়। এছাড়াও প্রতি জনের কাছ থেকে ২০০ টাকা রেজিষ্ট্রেশন ফি বাবদ ৪০০ টাকা করে প্রতি উপজেলা থেকে ১৫ লাখ টাকা করে সংগ্রহ করতে বলা হয়। পরবর্তীতে গত বছরের ৫ ফেব্রুয়ারি সদস্যদের রেজিষ্ট্রেশন ফি বাবদ আসামীকে চেকের মাধ্যমে ৬০ হাজার টাকা দেওয়া হয়। পরবর্তীতে গত বছরের ২০ ফেব্রুয়ারি ৩০০ জন সদস্যের চিকিৎসা ফি এক লাখ ২০ হাজার টাকা প্রদান করা হয়। পরবর্তীতে চলতি বছরের ১৮ জানুয়ারি মোট এক লাখ ৮০ হাজার টাকা ফেরত চাইলে টাকা দিতে তিনি অস্বীকার করেন। টাকা গুলো তিনি আত্মসাদ করেন। পরে ২৬ জানুয়ারি তারা রাণী বাদি হয়ে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বাসাইল থানা আমলী আদালতে টাকা আত্মসাদের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন।

(মজলুমের কণ্ঠ / ২১ অক্টোবর /আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles