মির্জাপুরে ৬ কোটি টাকার শাড়ি উদ্ধারের ঘটনায় আসামীদের আদালতে প্রেরণ

মির্জাপুরে ৬ কোটি টাকার শাড়ি উদ্ধারের ঘটনায় আসামীদের আদালতে প্রেরণ

মির্জাপুর প্রতিনিধি:

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে দুই কাভার্ড ভ্যান ভর্তি ৬ কোটি টাকার ভারতীয় শাড়িসহ মালামাল উদ্ধারের ঘটনায় আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে মামলা দায়েরের পর ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করে আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। বেলা আড়াই টায় পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করে টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমারা রায়। আসামীরা হচ্ছে, সাতক্ষীরা জেলার কলরোয়া উপজেলার দক্ষিণ দিঘনা গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে কাভার্ড ভ্যান চালক নাজমুল হোসেন (৩০), সাতক্ষীরা সদরের আবুল মোহসীনের ছেলে কাভার্ড ভ্যান চালক আকতারুল ইসলাম (৩৫), সাতক্ষীরা সদরের এরফান আলী গাজীর ছেলে হেলপার মশিউর (৪০) এবং সাতক্ষীরা সদরের দিদার উদ্দিনের ছেলে হেলপার নাসির উদ্দিন (৩০)

পুলিশ সুপার জানান, বুধবার (১৪ অক্টোবর) কাভার্ড ভ্যান দুটি অবৈধ পথে ভারত থেকে আনা শাড়ি নিয়ে সাতক্ষীরা থেকে ঢাকার ইসলামপুরের দিকে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের মির্জাপুর উপজেলার দেওহাটা নামক স্থানে পৌছালে মির্জাপুর থানার পুলিশের নেতৃত্বে কাভার্ড ভ্যান দুটি আটক করে। কাভার্ড ভ্যানের ভেতরে গমের বস্তা দিয়ে ঢাকা বিপুল পরিমাণ ভারতীয় শাড়ি জব্দ করা হয়। এর মধ্যে ভারতের বিভিন্ন ব্যান্ডের ১৮ হাজার ৩৩ পিস শাড়ী, এক হাজার ৮৫০ পিস ওড়না, তিন পিস লেহেঙ্গা উদ্ধার করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে এসআই রুবেল বাদি হয়ে মামলা দায়ের করে। পরে আসামীদের পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার আরো জানান, আসামীদের বিরুদ্ধে চোরাচালানসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

(মজলুমের কণ্ঠ / ১৫ অক্টোবর /আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles