কালিহাতীতে স্বামী হত্যায় স্ত্রীসহ প্রেমিক আটক

কালিহাতী প্রতিনিধি:

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে স্ত্রীর পরকীয়ায় বাধা হওয়ায় স্বামীকে হত্যার পর লাশ সেফটি ট্যাংকে ফেলে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় নিহতের স্ত্রী রেজিয়া ও তার পরকীয়া প্রেমিক হালিম মন্ডলকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার বাঁশি এলাকায় নিহত চান মিয়ার (৩৫) লাশ তার বাড়ির সেফটি ট্যাংক থেকে উদ্ধার করা হয়।

নিহতের স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমিক হালিম মন্ডল ওই এলাকার মনতা মন্ডলের ছেলে।

স্থানীয় কাউন্সিলর মুক্তার আলী বলেন, ‘গত শনিবার (৩ এপ্রিল) থেকে চান মিয়া নিখোঁজ ছিল। নিখোঁজের ঘটনায় কালিহাতী থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করা হয়। সকালে খবর পেয়ে পুলিশ তার লাশটি উদ্ধার করেছে।’

কালিহাতী থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রাহেদুল ইসলাম বলেন, ‘ স্ত্রী ও তার প্রেমিকসহ কয়েকজনে মিলে চান মিয়াকে হত্যার পর লাশ গুমের জন্য বাড়ির সেফটি ট্যাংকের ভেতর ফেলে রাখে। পরে স্ত্রীর দেয়া তথ্যে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত জিনিষগুলো আলামত হিসেবে জব্দ করা হয়েছে। গ্রাথমিকভাবে সে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। লাশ ময়নাতদন্তে জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় থানায় হত্যা মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে।’

(মজলুমের কণ্ঠ / ৬ এপ্রিল / আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles