মুনিয়ার মৃত্যু: পুলিশ ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে কাজ করছে

অনলাইন ডেস্ক:

ঢাকা মহানগর পুলিশের গুলশান জোনের ডিসি সুদীপ চক্রবর্তী জানিয়েছেন, কলেজ ছাত্রী মোসারাত হাজান মুনিয়ার মৃত্যুর ঘটনায় ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে পুলিশ সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে। এখানে কোন ধরণের ব্যাত্যয় হবে না। মামলার তদন্তের প্রয়োজনে মামলার অভিযুক্ত এবং অন্যান্য প্রাসঙ্গিক সব চরিত্রকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তিনি বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন। সুদীপ চক্রবর্তী বলেন, কলেজ ছাত্রী মোসারাত জাহান মুনিয়ার লাশ উদ্ধারের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ওই বাসা থেকে উদ্ধার করা ডায়েরিগুলো তদন্তে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। ওই ডায়েরিগুলোতে ওই অভিযুক্তের সঙ্গে ওই ছাত্রীর সম্পর্কের নানা বিষয় রয়েছে। ভিমটিমের সঙ্গে অভিযুক্তের সম্পর্কের টানাপড়েনের বিষয়ও ওই ডায়েরিতে আছে। তিনি বলেন, সিসি টিভি ফুটেজসহ বিভিন্ন মাধ্যমে আমরা অভিযুক্তের ওই বাসায় যাওয়ার বিষয় জানতে পেরেছি।

তিনি বলেন, মুনিয়ার ডায়েরিতে তার চূড়ান্ত হতাশার কথাগুলো লেখা রয়েছে। যে অডিও রেকর্ড এসেছে। সেখানে যে অর্থ আত্মসাতের বলা হচ্ছে। এসব কথাগুলো আমরা বিবেচনা করবো। এই বিষয়গুলো আমরা তদন্তের ক্ষেত্রে বিবেচনায় নেবো।

ঘটনার দিন সকালে তার বোনকে একটা কঠিন পরিণতির কথা জানিয়েছে। তাদের সম্পর্ক নিয়ে অভিযুক্ত পরিবারের সঙ্গে তার যে দ্বন্দ্ব এ বিষয়ে যেসব সাক্ষ্য প্রমাণ দরকার আমরা তা সংগ্রহ করছি। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ রয়েছে তার দালিলিক, বস্তুগত এব ডিজিটাল সাক্ষ্য সংগ্রহ করেই পরবর্তী ব্যবস্থা নেবো।

মুনিয়ার পরিবারের পক্ষ যেসব অভিযোগ করা এ বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, পুলিশ নিজের উদ্যোগেই এগিয়ে এসে ঘটনাপ্রবাহে যুক্ত হয়। দায়বদ্ধতার জায়গা থেকেই পুলিশ ভিকটিমের ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে কাজ করছে এবং করে যাবে। সূত্র-মানব জমিন।

 

(মজলুমের কণ্ঠ / ২৯এপ্রিল / আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles