আমেরিকায় চলে গেলেন মিশা

বিনোদন ডেস্ক:

অভিনেতা মিশা সওদাগর ও তার পরিবারর মার্কিন নাগরিক। মিশা দেশে থাকলেও আগে থেকেই তার স্ত্রী মিতা এবং দুই পুত্র সন্তান হাসান মোহাম্মদ ওয়ালিদ ও ওয়াইজ করণী যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ীভাবে বসবাস করেন। স্ত্রী -সন্তানদের সঙ্গে  দেখা করতে এই জনপ্রিয় খল-নায়ক চলে গেলেন আমেরিকায়।

মিশা সওদাগর আমেরিকা গেছেন ৭ সেপ্টেম্বর। শুক্রবার ফোনে তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে বিষয়টি জানান তিনি।

সম্প্রতি শাহিন সুমন পরিচালিত তারকাবহুল ওয়েব সিরিজ ‘মাফিয়া’র  শুটিংয়ে দেখা যায় শীর্ষ এই খল অভিনেতাকে।শুটিং শেষ করেই বিমানে ওঠেন।

মিশা সওদাগর বলেন, ‘পরিবারকে সময় দিতে কয়েক মাস আগে যাওয়ার কথা থাকলেও সিনেমার শুটিংয়ের ব্যস্ততার কারণে যেতে পারিনি। শুটিংয়ের ব্যস্ততা আপাতত কম আর স্ত্রী ও সন্তানদের খুব বেশি মিস করছিলাম। তাই একটু ফাঁকা সময় পেয়ে চলে আসলাম তাদের কাছে। তাদের সঙ্গে এখানে খুব সুন্দর সময় কাটছে আমার। শান্তি লাগবে মনে।

তিনি আরও বলেন, ‘এবার অনেকদিন থাকার ইচ্ছে আছে। দেশে ফেরার খুব একটা তাড়া নেই। কমপক্ষে মাসখানেক তো থাকবোই। এবার ঢাকায় ফিরেই মোহাম্মদ ইকবালের ‘রিভেঞ্জ’, সোলায়মান আলী লেবুর ‘প্রেম প্রীতির বন্ধন’ ছবির কাজ করবো’ দুটি সিনেমার বাকি অংশের শুটিং শেষ করার ইচ্ছে আছে। এরমধ্যে বেশ কয়েকটি নতুন সিনেমার কাজ নিয়ে কথা হচ্ছে। সেগুলো চুড়ান্ত হলে তখন জানাতে পারবো আশা করি।

এখন পর্যন্ত মিশা সওদাগর আট শতাধিকের বেশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। বাংলা চলচ্চিত্রে খলনায়ক হিসেবে তিনি নিজেকে নিয়ে গেছেন এক অতুলনীয় উচ্চতায়। কয়েক বছর ধরে এ অভিনেতার সর্বাধিক সংখ্যক সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে। বর্তমানেও তার হাতে রয়েছে একাধিক সিনেমার কাজ। আমেরিকা থেকে দেশে ফিরেই চলচ্চিত্রের কাজে নিয়মিত হবেন। তিনি পরপর দুবার চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। এখন সংগঠনের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

১৯৮৬ সালে, বিএফডিসির নতুন মুখের সন্ধানে প্রতিযোগিতায় অংশ নেন তিনি। তখন তার বয়স ছিল ২০ বছর। তার তিন বছরের মাথায় পরিচালক ছটকু আহম্মেদ পরিচালিত ‘চেতনা’ সিনেমার মাধ্যমে তিনি চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন। তবে এ চলচ্চিত্রে নায়কের চরিত্রে অভিনয় করেন এ অভিনেতা।

(মজলুমের কণ্ঠ / ১০ সেপ্টেম্বর/ আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles