জামিন মেলেনি, জেলজীবন যেভাবে কাটছে শাহরুখপুত্রের

বিনোদন ডেস্ক:

মাদক মামলায় শুক্রবারের শুনানিতেও জামিন পাননি বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান। আপাতত তাকে ভারতের মাদক নিয়ন্ত্রণ সংস্থার হেফাজতেই থাকতে হবে আগামী দুই সপ্তাহ। বর্তমানে আরিয়ান আর্থার রোড জেলে রয়েছেন। করোনা নিয়মবিধি মেনে সেখানে তিন থেকে পাঁচ দিন তাকে নিভৃতবাসে কাটাতে হবে।

কিন্তু তারকা-সন্তান বলে কোনো রকম ‘বিশেষ আয়োজন’ নেই আরিয়ানের জন্য। অন্য হাজতবাসীর মতোই সেখানে রয়েছেন কিং খানের ছেলে। জেলখানার রুটিন মেনেই আগামী কয়েক দিন চলতে হবে তাকে। প্রতিদিন ঘড়ি ধরে ঠিক ভোর ৬টায় ঘুম থেকে উঠা, সকাল ৭টায় নাস্তা করা।

জেলখানায় যা রান্না হয়, অন্য অভিযুক্তরা যা খান, সেগুলোই খেতে হচ্ছে সোনার চামুচ মুখে নিয়ে জন্মগ্রহণ করা আরিয়ানকে। জেলখানায় বাইরের খাবার একেবারেই নিষিদ্ধ। তাই বাড়ির খাবার খাওয়ার সুযোগ নেই শাহরুখপুত্রের।

নিয়ম অনুযায়ী, বেলা ১১টার মধ্যে দুপুরের খাবার দিয়ে দেওয়া হচ্ছে আরিয়ানকে। দুপুর এবং রাতের খাবারের তালিকায় রয়েছে রুটি, তরকারি, ডাল এবং ভাত। এর বাইরে আর কিছুই দেওয়া হচ্ছে না হাজতবাসী আরিয়ানকে।

খাওয়াদাওয়ার পর জেলের ভেতরেই হাঁটাচলা করতে দেওয়া হয় হাজতবাসীদের। যদিও আরিয়ান এবং তার সঙ্গীদের ক্ষেত্রে এখনও এই নিয়ম প্রযোজ্য নয়। তিন থেকে পাঁচ দিন পর্যন্ত নিভৃতবাসে থাকার পর জেলের মধ্যে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ঘোরাফেরা করতে পারবেন তারা।

সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে রাতের খাবার দিয়ে দেওয়া হয়। তবে বরাদ্দ খাবারের বাইরে ক্যান্টিন থেকে বাড়তি খাবার টাকার বিনিময়ে কিনে খেতে পারছেন আরিয়ান এবং তার সঙ্গীরা। মানি অর্ডারের মাধ্যমে সেই টাকা আনানো যেতে পারে।

প্রাসাদসম ‘মান্নাত’ ছেড়ে আপাতত হাজতে এ ভাবেই সাদামাটা দিন কাটছে আরিয়ান খানের। গত শনিবার মুম্বাই থেকে গোয়াগামী প্রমোদতরী থেকে গ্রেপ্তার করা হয় তাকে। প্রমোদতরীতে আয়োজিত পার্টিতে থাকাই যেন জীবনের কাল হয়ে এলো শাহরুখপুত্রের জীবনে।

(মজলুমের কণ্ঠ / ৯ অক্টোবর / আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles