মির্জাপুরে ভিজিএফ কার্ড দেয়ার কথা বলে গৃহবধুকে ধর্ষনের অভিযোগ

মির্জাপুর প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ভিজিএফ কার্ড দেয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গৃহবধুকে ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মির্জাপুর উপজেলার বহুরিয়া ইউনিয়নের কোট বহুরিয়া গ্রামে।

এ ঘটনায় ধর্ষিতা গৃহবধু বাদী হয়ে ইউপি সদস্য ইদ্রিস আলী (৪০) বিরুদ্ধে টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে ধর্ষনের মামলা করেছেন। মামলা নম্বর ১৩৬, তারিখ ১৫ এপ্রিল ২০১৮।

মামলার বিবরণ থেকে জানা গেছে, গত ১১ এপ্রিল রাত আনুমানিক সাড়ে নয়টার দিকে বহুরিয়া ইউনিয়নের কোট বহুরিয়া গ্রামের আমিরুদ্দিনের অসহায় স্ত্রী ফাতেমা বেগমকে (৩৫) ভিজিএফ কার্ড দেয়ার কথা বলে বহুরিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড মেম্বার ইদ্রিস আলী বাড়ির পূর্বপাশে নদীর ধারে ডেকে নেয়। পরে সেখানে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। এ সময় তিনি আর্তচিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে ধর্ষক ইদ্রিস আলী পালিয়ে যায়।

ঘটনার পরদিন ১২ এপ্রিল সকালে গৃহবধু ফাতেমা বেগম মির্জাপুর থানায় এসে ওই ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগ দায়ের করতে চাইলে পুলিশ তা গ্রহণ না করে আদালতে যাওয়ার পরামর্শ দেন। পরে তিনি টাঙ্গাইল আদালতে মামলা দায়ের করেছেন বলে জানান।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য ইদ্রিস আলীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি তার বিরুদ্ধে করা ধর্ষনের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, অভিযোগকারীর সঙ্গে তার শরিকী সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। সেই বিরোধ মীসাংসায় তিনি সন্তুষ্ট হতে না পেরে তার বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগ করেছেন।

মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুল হক বলেন আমার জানামতে মির্জাপুর থানায় ধর্ষনের অভিযোগ করতে ওই মহিলা আসেন নি। আসলে অবশ্যই অভিযোগ নিয়ে যথাযথ আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হতো।

Related Articles