কালিহাতীর পৌলিতে ফ্রান্স বিরোধী বিক্ষোভ সমাবেশ

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে পৌলিতে ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় পৃষ্টপোষকতায় মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ ও প্রতিবাদ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার (৬নভেম্বর) কালিহাতী উপজেলা পৌলি মহেলা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ব্যানারে ওই সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। আর এতে উপজেলার সর্বস্তরের তৌহিদী জনতা অংশগ্রহণ করেন।
মিছিলটি কালিহাতী পোলি ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের রাস্তায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবাদ মিছিলে নারায়ে তাকবির- আল্লাহু আকবার, আমার নবী তোমার নবী- বিশ্ব নবী বিশ্ব নবী, বিশ্ব নবীর অপমান- সইবেনা আর মুসলমান, বিশ্বের মুসলিম- এক হও এক হও, ফ্রান্সের পণ্য- বর্জন কর, করতে হবে, আমরা সবাই রাসূল সেনা- ভয় করিনা বুলেট বোমা, করলে রাসূলের অপমান কেড়ে নিবো তার প্রাণ, ফ্রান্সকে ঘৃনা করি, ম্যাক্রোর গালে গালে জুতা মারো তালে তালে, রক্তের বন্যায় ভেসে যাবে অন্যায়, ম্যাক্রোর ফাঁসি চাই, এ্যাকশন এ্যাকশন – ডাইরেক্ট এ্যাকশন সহ বিভিন্ন শ্লোগান সম্বলিত নানা রঙ্গের ফেষ্টুন ও ব্যানার দেখা যায়।
মুফতি বেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাবেক প্যানেল মেয়র বর্তমান কাউন্সিলর আব্দুল বারেক , মহেলা নূরানীয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার সুপারেন্টেন ইফতেখারুল ইসলাম ইসলাম পৌলি জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা মাহমুদুল হাসান মাওলানা গোলাম মোস্তফা অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জহরুল হক, হাফিজুর রহমান , আফজাল হোসেন, আব্দুল কাদের মাষ্টার, আব্দুল কাদের ডাক্তার, মোফাজ্জল মোল্লা, মামুন, শরীফ, বেলাল, নায়েব আলী, বিশিষ্ট আলেম ওলামাবৃন্দ। এসময় বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সমাবেশে বক্তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট ৬ টি দাবী তুলে ধরেন। দাবীগুলো হলো- ১। আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে জনমত গঠন পূর্বক ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোকে তার চরম ঘৃণ্য কর্মকান্ডের জন্য বিশ্বের পৌনে দুইশত কোটি মুসলমানের কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করতে হবে, ২। কূটনৈতিক তৎপরতা যদি ব্যর্থ হয় তাহলে বিশ্বের ৫৭ টি মুসলিম রাষ্ট্রকে সঙ্গে নিয়ে ফ্রান্স ও তার সরকারের বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে, ৩। বাংলাদেশের বাজারে সকল প্রকার ফরাসি পণ্যের বিপণন ও অনুপ্রবেশ নিষিদ্ধ করতে হবে, ৪। ফ্রান্সের সাথে সকল প্রকার কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে এবং ঢাকায় অবস্থিত ফরাসি দূতাবাস বন্ধ ঘোষণা করতে হবে, ৫। রাসুলুল্লাহ (সা.) এর শানে অবমাননাকারীর বিরুদ্ধে সংসদে সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান তথা ফাঁসির আইন পাশ করতে হবে, ৬। আমাদের দেশে নাস্তিক্যবাদের ধ্বজাধারী একশ্রেণীর কুচক্রী মহল যারা বিভিন্নভাবে ইসলাম মুসলমান ও ওলামায়ে কেরামকে কটাক্ষ করে এদেশের শান্তি ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার হীন পাঁয়তারায় লিপ্ত তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।
মজলুমের কন্ঠ/ ৬ নভেম্বর/
(মেহেদী )

Related Articles