রাদুকানু মনে করিয়ে দিলেন হিঙ্গিস-শারাপোভাদের

খেলাধুলা ডেস্ক:

১৮ বছর বয়সে ইউএস ওপেন জিতে আলোড়ন তুলেছেন ব্রিটিশ টেনিস সেনসেশন এমা রাদুকানু। তবে কৈশোরে গ্র্যান্ড স্লাম জেতাদের তালিকায় রাদুকানুই একমাত্র নন। এ তালিকায় আছেন টেনিস দুনিয়ার একাধিক কিংবদন্তি। কম বয়সে গ্র্যান্ড স্লাম জেতার তালিকায় আছেন মার্টিনা হিঙ্গিস, মনিকা সেলেস, মারিয়া শারাপোভারা। এমন পাঁচ মহাতারকাকে নিয়েই এই আয়োজন।

মার্টিনা হিঙ্গিস শিরোপা জয়: ১৬ বছর ১১৭ দিনে ১৯৯৭ অস্ট্রেলিয়ান ওপেনমার্টিনা হিঙ্গিস শিরোপা জয়: ১৬ বছর ১১৭ দিনে ১৯৯৭ অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। ছবি: টুইটার ১৯৯৭ সালের অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে কৈশোরে মেরি পিয়েরসেকে হারিয়ে আলোড়ন তুলেছিলেন মার্টিনা হিঙ্গিস। এখন পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে সবচেয়ে কম বয়সে গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের রেকর্ডটা সুইস কিংবদন্তির অধিকারে। ইতিহাসের অন্যতম সেরা এ টেনিস তারকা ৫টি গ্র্যান্ড স্লাম জিতেছেন। দুবার ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনালে উঠে না হারলে সংখ্যাটা আরও বাড়তে পারত। চোটও বেশ ভুগিয়েছে তাঁকে।

মনিকা সেলেস শিরোপা জয়: ১৬ বছর ১৮৯ দিনে ১৯৯০ ফ্রেঞ্চ ওপেনমনিকা সেলেস শিরোপা জয়: ১৬ বছর ১৮৯ দিনে ১৯৯০ ফ্রেঞ্চ ওপেন। ছবি: টুইটার টেনিস ইতিহাসের অন্যতম আলোচিত তারকা মনিকা সেলেস। ৯ গ্র্যান্ড স্লামের ৮টি তিনি জিতেছেন যুগোস্লাভিয়ার হয়ে। ১৯৯৬ সালের অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে শেষ গ্র্যান্ড স্লামটি জেতেন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক হিসেবে। বয়স ২০ পেরোনোর আগেই ৮টি গ্র্যান্ড স্লাম জেতেন সেলেস। ১৯৯৩ সালে স্টেফি গ্রাফের ভক্ত ছুরিকাঘাত না করলে তাঁর গ্র্যান্ড স্লামের সংখ্যা আরও বেশি হতে পারত।

ট্রেসি অস্টিন শিরোপা জয়: ১৬ বছর ২৭০ দিনে ১৯৭৯ ইউএস ওপেনট্রেসি অস্টিন শিরোপা জয়: ১৬ বছর ২৭০ দিনে ১৯৭৯ ইউএস ওপেন। ছবি: টুইটার ইউএস ওপেনে এখনো সর্বকনিষ্ঠ শিরোপা জেতা খেলোয়াড় ট্রেসি অস্টিন। ফ্লাশিং মিডোসে এখন পর্যন্ত কেউ তাঁর এই রেকর্ড ভাঙতে পারেননি। ক্যারিয়ারে মাত্র ২টি গ্র্যান্ড স্লাম জেতেন অস্টিন। ২টিই ইউএস ওপেনে। তবে চোট ও দুর্ঘটনায় না ভুগলে মার্কিন এই তারকা আরও অনেক দূর যেতে পারতেন। ১৯৯৪ সালে টেনিসকে বিদায় জানান অস্টিন।

মারিয়া শারাপোভা শিরোপা জয়: ১৭ বছর ৭৫ দিনে ২০০৪ উইম্বলডনমারিয়া শারাপোভা শিরোপা জয়: ১৭ বছর ৭৫ দিনে ২০০৪ উইম্বলডন। ছবি: টুইটার ২০০৪ সালের উইম্বলডন ফাইনালে সেরেনা উইলিয়ামসকে হারিয়ে টেনিস-বিশ্বে আলোড়ন তোলেন মারিয়া শারাপোভা। নিজের সময়ে জনপ্রিয়তায়ও বাকিদের ছাড়িয়ে গিয়েছিলেন শারাপোভা। ২ বার ফ্রেঞ্চ ওপেনসহ সব মিলিয়ে ৫টি গ্র্যান্ড স্লাম জিতেছেন রাশিয়ান টেনিস তারকা। ২০০৫ সালে নারী এককের শীর্ষে উঠে আসেন তিনি। ২০২০ সালে টেনিসকে বিদায় জানান শারাপোভা।

আরান্তজা ভিকারিও শিরোপা জয়: ১৭ বছর ১৭৪ দিনে ১৯৮৯ ফ্রেঞ্চ ওপেনআরান্তজা ভিকারিও শিরোপা জয়: ১৭ বছর ১৭৪ দিনে ১৯৮৯ ফ্রেঞ্চ ওপেন। ছবি: টুইটার ১৯৮৯ সালের ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনালে স্টেফি গ্রাফকে হারিয়ে অঘটনের জন্ম দেন আরান্তজা ভিকারিও। সে সময় অন্যতম সেরা তারকা ছিলেন গ্রাফ। ক্যারিয়ারে ৩ বার ফ্রেঞ্চ ওপেন জয়ের পাশাপাশি ১ বার ইউএস ওপেনও জেতেন তিনি। অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও উইম্বলডনে ২ বার রানারআপ হয়েছেন তিনি। ২০০২ সালে অবসরে যাওয়ার আগে ৬ বার ডাবলস শিরোপাও জেতেন তিনি।

(মজলুমের কণ্ঠ / ১৫ সেপ্টেম্বর/ আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles