খালেদার অবস্থা অত্যন্ত ক্রিটিক্যাল: ডা. জাফরুল্লাহ

অনলাইন ডেস্ক:

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ‘অত্যন্ত ক্রিটিক্যাল’ বলে জানিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এই অবস্থায় লন্ডনে থাকা খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমানকে দেশের সব রাজনৈতিক দল ও বুদ্ধিজীবীকে ফোন করে তার মায়ের জীবন বাঁচানোর আহ্বান জানাতে পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে গণফোরামের একাংশের কাউন্সিলে অংশ নিয়ে জাফরুল্লাহ চৌধুরী এসব কথা বলেন।

বিএনপিপন্থী এই বুদ্ধিজীবী বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আছেন। খুবই খারাপ অবস্থা। কখন কী হয়ে যায় বলা যায় না। তাই তারেক রহমানের উচিত হবে প্রত্যেক দল ও বুদ্ধিজীবীকে নিজে ফোন দিয়ে বেগম জিয়ার জীবন বাঁচানোর আহ্বান জানানো।’

আবারও জাতীয় সরকার প্রসঙ্গ তুলে উপস্থিত রাজনীতিবিদদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘সবাই মিলে জাতীয় সরকার করেন। সেই জাতীয় সরকারকে জনগণের ভোটে বিজয়ী করেন।’

শিক্ষার্থীদের গণপরিবহনে হাফ ভাড়ার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ছাত্রদের হাফ ভাড়া সারা বিশ্বে। অনেক দেশে ছাত্রদের জন্য ফ্রি। এদেশে কেন পাবে না?’

অনুষ্ঠানে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘সরকার বলছে মুক্তিযোদ্ধাদের অনেক সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হয়েছে। আসলে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধারা সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন না। মুষ্টিমেয় কিছু মুক্তিযোদ্ধা সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন। জিয়াউর রহমান একজন সেক্টর কমান্ডার ছিলেন। তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধা। তার স্ত্রী খালেদা জিয়া মৃত্যুসজ্জা। বিদেশে চিকিৎসা করতে যেতে চান। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী, আপনি তাকে বিদেশ যেতে দিচ্ছেন না কিসের ভয়ে? তিনি কি বিদেশ গেলে আর ফিরে আসবেন না?’

কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘অবশ্যই খালেদা জিয়া দেশের বাইরে গেলে ফিরে আসবেন। ওয়ান-ইলেভেনের সময়ও তাকে বিদেশ পাঠাতে চেয়েছিল। তিনি বলেছেন, মরতে হয় দেশের মরব। তাই আপনাকে (শেখ হাসিনা) বলব, একজন মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীর প্রতি সম্মান দেখিয়ে আজই তাকে বিদেশে পাঠিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করুন।’

কয়েক ভাগে ভাগ হয়ে যাওয়া গণফোরামের এই কাউন্সিল হচ্ছে সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টুর নেতৃত্বাধীন অংশের। দলের ৬ষ্ঠ কাউন্সিলে প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপির চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াসহ সব রাজনৈতিক দলের প্রধানকে দাওয়াত দেওয়া হয়।

(মজলুমের কণ্ঠ / ৩ ডিসেম্বর / আর.কে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles