ঘাটাইলে ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টাকালে গ্রামবাসীর হাতে বখাটে আটক

ঘাটাইল প্রতিনিধি : ঘাটাইলে ৪র্থ শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে গ্রামবাসীর হাতে আটক হয়েছে এক বখাটে। পরে গ্রামবাসী অভিযুক্ত রিপন মিয়া (৩২) কে পুলিশে সোপর্দ করে। ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার ঘাটাইল উপজেলার বাগুনডালী গ্রামে। ছাত্রীটি স্থানীয় মাইজবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী। ছাত্রীটির বাবা আশরাফ আলী বাদী হয়ে এ ব্যাপারে ঘাটাইল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

গ্রামবাসী জানায়, ঘাটাইল উপজেলার দিঘলকান্দি ইউনিয়নের বাগুনডালী গ্রামের আশরাফ আলীর মেয়ে রিয়া (১০) সে স্থানীয় মাইজবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রী । প্রতিদিনের ন্যায় সে শনিবার বাড়ি থেকে সকালে বাগুনডালী পশ্চিমপাড়া প্রাইভেট পড়তে যাচ্ছিল। প্রাইভেট পড়তে যাওয়ায় পথে বাগুনডালী গ্রামের ইয়াকুব আলীর ছেলে রিপন মিয়া (৩২) ছাত্রীটিকে ধর্ষণের উদ্দেশ্যে টেনে হিছড়ে পাশ্ববর্তী পাট ক্ষেতে নিয়ে যায়। তখন সে ডাক চিৎকার শুরু করলে পাট ক্ষেতের অদুরে অবস্থিত বাড়ির এক মহিলা দৌড়ে এসে তাকে উদ্ধার করে।

এ সময় বখাটে রিপন দৌড়ে পালিয়ে যায়। তৎক্ষনাৎ ঘটনাটি জানাজানি হলে গ্রামবাসী বখাটে রিপনকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রিপনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। শনিবার রাতে ছাত্রীটির বাবা আশরাফ আলী বাদী হয়ে এ ব্যাপারে নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে ঘাটাইল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কমর্ককর্তা (তদন্ত ) মোঃ আশরাফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আটক রিপন মিয়াকে গতকাল রোববার সকালে টাঙ্গাইল আদালতে প্রেরন করা হয়েছে। মামলার তদন্ত কাজ চলছে।

Related Articles