টাঙ্গাইলে হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলে হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়ামে লিখিত বক্তব্যে পাঠ করেন মির্জাপুর উপজেলার আটিয়া মাহমুদপুর গ্রামের মো.মোতাহার হোসেনের স্ত্রী কুলসুম বেগম।

তিনি বলেন, তার মেজ ছেলে মনিরুজ্জামন মনির একই এলাকার লাবু মিয়ার মেয়ে শিখা আক্তারকে পারিবারিক সম্মতি ছাড়া বিবাহ করে পালিয়ে গিয়েছিল। পরবর্তীতে মেয়ে পক্ষ মামলা করে এবং সেই মামলা আপোষ শর্তে শিখা আক্তারের নামে ২২০ শতাংশ জমি লিথে দেয়া হয়।

পরবর্তীতে উক্ত জমি মনির বিক্রি কওে সর্বশান্ত হয়ে আবার আমাকে জমি লিখিয়া দিতে চাপ দিতে থাকে।

এ বিষয় নিয়ে মনিরের শুশুর বাড়ীর সাথে বিরোধ চলছিল। তারই ধারাবাহকতায় গত ২৫শে ফেব্রুয়ারি বিকাল আনুমানিক ৩টার দিকে মনিরের শশুর লাবু মিয়া, শুমন্দী দিপু, অপু, চাচা শুশুর আবু মিয়া সহ কয়েকজন সন্ত্রাসী আমার বাড়ীতে প্রবেশ করে লাটিসোটা দিয়ে আমাকে, বড়ছেলে কনক, ছোট ছেলে রনি ও ৪ মাসের অন্তসত্বা পুত্রবধূ সোনিয়া আক্তারকে এলাপাথারী মারধর করে। পরে প্রতিবেশী আমাদেরকে আহত অবস্থায় জামুর্কী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করে।

এ ঘটনায় মির্জাপুর থানায় মামলা নং-২৪। মামলা করার পর মিজানুর রহমান আবু বাড়ীতে বিভিন্ন রকম হুমকী দিয়ে আসছে। তার মেয়ের জামাই সাইফ সেনাবহিনীতে মেজর পদে আছেন বলে সেই দাপট দেখিয়ে এলাকার সাধারণ মানুষকে অত্যাচার করে। এদিকে মামলা হলেও কোন আসামী এখনো গ্রেফতার হয়নি।

Related Articles