টাঙ্গাইলে ছেলে ধরা সন্দেহে ভ্যানচালকে গনপিটুনির ঘটনায় গ্রেফতার ৬

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে ছেলে ধরা সন্দেহে মিনু মিয়া (৩০) নামের এক ভ্যান চালককে অমানুবিক নির্যাতনের ঘটনায় ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার রাতভর অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন মাইনুল হক হিটু (৩৭) উপজেলার নাগা চৌধুরীবাড়ী গ্রামের মৃত তরিকুল আলম সিদ্দিকির ছেলে, প্রভাত চন্দ্র মালু (১৯) নাগা গ্রামের সন্তোষ চন্দ্র মালুর ছেলে, শিশির আহম্মেদ খান (৩২) একই গ্রামের আনোয়ার হোসেন খান, মিজানুর রহমান তালুকদার (৪৭), একই গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে, ওমর (৩২) একই গ্রাসের আনোয়ার হোসেন খানের ছেলে এবং আলামিন ইসলাম (১৯) পালিমা গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে।

মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) শফিকুল ইসলাম এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, গত ২১ জুলাই রোববার ছেলে ধরা সন্দেহে কালিহাতী উপজেলায় সয়া হাটে ভ্যান চালক মিনু মিয়াকে গনপিটুনি দেয় স্থানীয়রা। কিন্তু সে ছেলে ধরা ছিল না। মূলত সে হাটে মাছ ধরার জাল কিনতে গিয়েছিলো। পরে এ ঘটনায় আহততের ভাই রাজিব হোসেন সোমবার রাতে বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে রাতেই অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারদেরে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হবে।

এছাড়া জেলায় আরো দুই জনকে ছেলে ধরা সন্দেহে গণপিটুনি দেয়। কিন্তু তারাও ছেলে ধরা ছিলো না। যদি কাউকে সন্দেহ হয় তাহলে পুলিশকে জানানোর জন্য অনুরোধ করা হইলো। পুলিশ তাৎক্ষণিক ব্যাবস্থা নেবে।

Related Articles