নুরদের ওপর হামলায় ৪৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ডেস্ক নিউজ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের ভিপি নুরুল হক নুরসহ তার সহযোগীদের ওপর হামলার ঘটনায় শাহবাগ থানায় একটি মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার পুলিশ বাদী হয়ে মামলাটি করে।

মামলাটিতে গত রবিবারের হামলার ঘটনায় আটক মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন ও ঢাবি শাখা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত তুর্যকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

রমনা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান  এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ডাকসু ভবনে হামলার ঘটনায় শাহবাগ থানা পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করেছে। মামলায় আটজনের নাম উল্লেখসহ ৩০ থেকে ৩৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। ডিবি পুলিশের হাতে আটক মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের দুই নেতাকে এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।’

মামলার নাম উল্লেখ করা আট আসামি হলেন- মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, ঢাবি শাখার সভাপতি এ এস এম সনেট, সাধারণ সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত তূর্য, এ এফ রহমান হল শাখা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক ইমরান সরকার, কবি জসিম উদ্দিন হল শাখার সাধারণ সম্পাদক ইয়াদ আল রিয়াদ (হল থেকে অস্থায়ী বহিষ্কৃত), জিয়া হল শাখা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তৌহিদুল ইসলাম মাহিম এবং মাহবুব হাসান নিলয়।

গত রবিবার মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ নামে একটি সংগঠনের ব্যানারে কর্মসূচির পর ডাকসু ভবনে নুরদের ওপর হামলা হয়। ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মীকেও এই হামলায় দেখা যায়।

এই সংগঠনটির ব্যানারে ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মী সম্প্রতি ডাকসু ভবনে নুরের কক্ষে তালা দেওয়াসহ তার কর্মসূচিতে বাধা দেওয়ার ঘটনাও ঘটিয়েছিল।

সেদিন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা লাঠিসোঁটা নিয়ে ভিপি নূরের কক্ষে ঢুকে বাতি নিভিয়ে সেখানে থাকা সবাইকে এলোপাতাড়ি পেটান বলে আহতদের ভাষ্য।

হামলায় আহত নূরসহ ৩০ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। এর মধ্যে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতা তুহিন ফারাবীকে রবিবার রাতেই নেওয়া হয় লাইফ সাপোর্টে।

শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় সোমবার লাইফ সাপোর্ট খুলে ফারাবীকে নিউরোলজি ওয়ার্ডে নেওয়া হয়।

 

(এম কন্ঠ/আর.কে/২৪ডিসেম্বর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related Articles